থাইল্যান্ডের সঙ্গে সড়কপথে যুক্ত হবে সিলেট: পররাষ্ট্রমন্ত্রী - protidinislam.com | protidinislam.com |  
আন্তর্জাতিক

থাইল্যান্ডের সঙ্গে সড়কপথে যুক্ত হবে সিলেট: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  প্রতিনিধি ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ , ১১:০৬:০১ প্রিন্ট সংস্করণ

Spread the love

ইসলাম ডেস্কঃ থাইল্যান্ডের সঙ্গে সড়কপথে সিলেট যুক্ত হবে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সড়কপথে থাইল্যান্ডকে যুক্ত করার চেষ্টা চলছে।

আরো পড়ুনঃ

স্পেনে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানে প্রবাসীদের মিলনমেলা

সিলেটের তামাবিল থেকে ভারত-মিয়ানমার হয়ে থাইল্যান্ডে যাবে সড়ক যোগাযোগ। এতে ভারত সম্মত হয়েছে।

অন্য দেশের সঙ্গেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। উদ্যোগটি বাস্তবায়ন হলে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এটি হাব হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকেলে সিলেটে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন মন্ত্রী। সিলেট সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প অনুমোদন ও সিলেটের উন্নয়নের বিশেষ অবদান রাখায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে নাগরিক সংবর্ধনা দিতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটের উন্নয়নে বরাদ্দ দিতে দ্বিধা করেন না। না চাইতেও প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে অনেক কিছু পাচ্ছে সিলেট। সিলেট নগরের উন্নয়নে ১২২৮ কোটি টাকা দিয়েছে সরকার। সিলেটের যোগাযোগ ব্যবস্থা, রাস্তাঘাট প্রতিনিয়ত উন্নত হচ্ছে।

এমএজি ওসমানী বিমানবন্দর অত্যাধুনিক হচ্ছে। স্বাস্থ্যখাতে ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। শিক্ষাখাতে উন্নয়নের ক্ষেত্রে বৃহত্তর সিলেটের প্রত্যেকটি কলেজে বিশেষ অনুদান দেওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে মডেল সিলেট গড়ে তোলা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘এই সিলেট নগর আপনার-আমার সবার। কে কোন মতের-দলের সেটা দেখার বিষয় নয়। আমরা সবাই সিলেটের— এটাই মূল বিষয়। এখানের ছেলে আমি, আমাদের সবার হৃদয়ে সিলেট।

আমার কাছে কেউ কেউ বলেন যে, মেয়র অন্য দলের। সুতরাং আপনি উনার অনেক প্রস্তাব গ্রহণ করবেন না। আমি বলি-সিলেট তো আমারও। মেয়র সাহেবরও। তাই বৃহত্তর সিলেটের মঙ্গলের জন্য সব করতে হবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘টাকা শুধু পাইলেই হয় না। টাকা কাজে লাগাতে হয়। টাকা আগেও দিয়েছিলেন আমাদের অর্থমন্ত্রী। কিন্তু ফেরত গেছে। বর্তমান সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলররা টাকা কাজে লাগাচ্ছেন। ফলে সিলেটের উন্নয়ন হচ্ছে।’

এদিকে সিটি মেয়র ও বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী বিভিন্ন সময় আওয়ামীবিরোধী বক্তব্য রাখার অভিযোগে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান বর্জন করেন সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা। মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) রাতে জরুরি সভা করে এ সিদ্ধান্ত নেন তারা।

তবে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা বর্জন করলেও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল অনুষ্ঠানে অতিথির বক্তৃতা দেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি তাহমিন আহমেদ, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ টি এম ফয়েজ, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আল আজাদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের উদ্দেশ্যে মানপত্র পাঠ করেন সিসিকের প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা ইয়াসমীন নাহার রুমা।

পরে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী মানপত্র, সম্মাননা ক্রেস্ট ও সংবর্ধনা স্মারক স্বর্ণের ‘নগর চাবি’ মন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। এর আগে সিসিক মেয়র, কাউন্সিলররা মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

আরও খবর

Sponsered content

ENGLISH