ফলাফল ঘোষণার সুখবর দিলেন এনটিআরসিএ - protidinislam.com | protidinislam.com |  
জাতীয়

ফলাফল ঘোষণার সুখবর দিলেন এনটিআরসিএ

  প্রতিনিধি ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ , ৬:০০:৩৪ প্রিন্ট সংস্করণ

Spread the love

ইসলাম ডেস্ক: সারাদেশে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৬৮ হাজার ৩৯০ জন শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে গত বছর চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে এক লাখের বেশি নিবন্ধনধারী আবেদন করেছেন। চলতি ফেব্রুয়ারি মাসে মেধাতালিকা অনুযায়ী ফলাফল প্রকাশ করা হতে পারে। সংশ্লিষ্ট মাধ্যমে এমনটিই জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএ সচিব ওবাইদুর রহমান বুধবার দুপুরে জাগো নিউজকে বলেন, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে আবেদন জমা পড়েছে এক লাখের বেশি। মামলা সংক্রান্ত জটিলতা থাকায় সেগুলো সমাধান করার চেষ্টা চলছে। চলতি মাসের মাঝামাঝি মেধাতালিকা অনুযায়ী ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

তবে ঠিক কোনদিন ফল প্রকাশ হবে, তা নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি ওই কর্মকর্তা। জানা গেছে, এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান বিষয়টি গণমাধ্যমে এ মুহূর্তে প্রকাশ করতে জানাতে চান না বলে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হলেও কেউ নির্দিষ্ট করে তা বলছেন না।

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৬৮ হাজার ৩৯০টি শূন্য পদের মধ্যে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে ৩১ হাজার ৫০৮টি শূন্য পদ রয়েছে। মাদরাসা, কারিগরি ও ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শূন্য পদ রয়েছে ৩৬ হাজার ৮৮২টি। সবগুলো এমপিওভুক্ত পদ।

এনটিআরসিএর গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদরাসা, কারিগরি ও ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রবেশ পর্যায়ে (এন্ট্রি লেভেল) ৬৮ হাজার ৩৯০ পদে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগের সুপারিশ পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের জন্য গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর দুপুর ১২টা থেকে গত ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করার সুযোগ ছিল।

প্রত্যেক আবেদনকারী নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী একই পর্যায়ে (স্কুল/কলেজ) একটি মাত্র আবেদন করতে পেরেছেন। একজন প্রার্থী শূন্য পদের তালিকা থেকে সর্বোচ্চ ৪০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পেরেছেন। সব আবেদনের জন্য ফি এক হাজার টাকা।

৪০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বাইরে কোনো প্রার্থী যদি তার পছন্দ-বহির্ভূত দেশের যে কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চাকরি করতে ইচ্ছুক হন, সেক্ষেত্রে ই-অ্যাপ্লিকেশন ফরম পূরণেরও সুযোগ ছিল।

আরও খবর

Sponsered content

ENGLISH