যে কারণে জাতীয়করণ প্রাথমিক শিক্ষকদের সনদ চেয়েছে অধিদপ্তর - protidinislam.com | protidinislam.com |  
জাতীয়

যে কারণে জাতীয়করণ প্রাথমিক শিক্ষকদের সনদ চেয়েছে অধিদপ্তর

  প্রতিনিধি ২৫ মার্চ ২০২৩ , ৫:৪৫:৩৩ প্রিন্ট সংস্করণ

Spread the love

ইসলাম ডেস্ক: ময়মনসিংহ বিভাগের জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষকগণের বিএড/সিএড, সিইনএড সনদ এর সত্যায়িত কপি অধিদপ্তরের উপপরিচালক, তদন্ত ও শৃঙ্খলা শাখা বরাবর প্রেরণ করার জন্য প্রতি উপজেলায় চিঠি দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

গত ২২ মার্চ,২০২৩ তারিখে ড. নাছিমা বেগম উপপরিচালক(তদন্ত ও শৃঙ্খলা) স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, ২০১৩ সন ও তৎপরবর্তী বিভিন্ন ধাপে জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক যারা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়/ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএড/সিএড, সিইনএড সনদ গ্রহণ করেছেন তাঁদের কেউ কেউ জাল সনদ গ্রহণ করেছেন এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্কেলের বেতন ভাতাদি গ্রহণ করেছেন মর্মে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানা যায়।

এতে সারাদেশে প্রাথমিক শিক্ষার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন মাধ্যম থেকে আরও জানা যায় দেশব্যাপী এ জাল সনদ প্রদানের বিভিন্ন সিন্ডিকেট রয়েছে।

চিঠিতে সারাদেশের জাতীয়করণকৃত শিক্ষকগণের সনদ যাচাইয়ের লক্ষ্যে তাঁর আওতাধীন সকল উপজেলা শিক্ষা অফিসার কে জাতীয়করণকৃত শিক্ষকগণের সনদের সত্যায়িত কপি সংযুক্ত ছকে আগামী ১৫ এপ্রিল ২০২৩ তারিখের মধ্যে উপপরিচালক, তদন্ত ও শৃঙ্খলা শাখা বরাবর প্রেরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নির্ধারিত ছকে উপজেলার নাম,উপজেলায় মোট জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়ের সংখ্যা,ক্লাস্টারের নাম,শিক্ষকের নাম, পদবী ও বিদ্যালয়ের নাম,জাতীয়করণের সন/তারিখ,বিএড/সিএড,সিইনএড সনদ প্রদান প্রতিষ্ঠানের নাম, ভর্তির তারিখ,বিভাগীয় অনুমতির স্মারক ও তারিখ,পাশের সন ও প্রাপ্ত গ্রেড/বিভাগ উল্লেখ করতে করতে হবে।

ছকে বর্ণিত সনদের যথার্থতা সম্পর্কে ক্লাস্টার কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা অফিসারের (ইউইও) এর সুস্পষ্ট মতামত প্রদান করার জন্যও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

আরও খবর

Sponsered content

ENGLISH